1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
সোমবার, ১০ মে ২০২১, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট:
চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ ভারত মহাসাগরে পড়েছে টানা নবম খেতাব জার্মান লিগ চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ দেড়শতাধিক বছর পূর্বে প্রতিষ্ঠিত, রাজাপুরের কারামাতিয়া মসজিদে জুমায় মুসল্লিদের সংকুলান হয় না শেখেরহাটের গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বেহালদশা রাজাপুরে আদালতের নির্দেশে ১৮ মাস পর হত্যার মামলা রেকর্ড কাঁঠালিয়ায় মাহিন্দ্রার ধাক্কায় কিশোরের মৃত্যু কাঁঠালিয়া ও রাজাপুরে দুই হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন কেন্দ্রীয় আ. লীগ নেতা মনির ঝালকাঠিতে সুবিধা বঞ্চিত রোজাদারদের মাঝে দুরন্ত ফাউন্ডেশন’র ভিন্নধর্মী ইফতার ঝালকাঠিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান সমালোচনার মুখে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, ভারত থেকে নাগরিকদের ফেরাতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া
শিরোনাম:
চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ ভারত মহাসাগরে পড়েছে টানা নবম খেতাব জার্মান লিগ চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ দেড়শতাধিক বছর পূর্বে প্রতিষ্ঠিত, রাজাপুরের কারামাতিয়া মসজিদে জুমায় মুসল্লিদের সংকুলান হয় না শেখেরহাটের গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বেহালদশা রাজাপুরে আদালতের নির্দেশে ১৮ মাস পর হত্যার মামলা রেকর্ড কাঁঠালিয়ায় মাহিন্দ্রার ধাক্কায় কিশোরের মৃত্যু কাঁঠালিয়া ও রাজাপুরে দুই হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন কেন্দ্রীয় আ. লীগ নেতা মনির ঝালকাঠিতে সুবিধা বঞ্চিত রোজাদারদের মাঝে দুরন্ত ফাউন্ডেশন’র ভিন্নধর্মী ইফতার ঝালকাঠিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান সমালোচনার মুখে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, ভারত থেকে নাগরিকদের ফেরাতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া

আমার কেউ নাই, আল্লাহ যেভাবে খাওয়ায় সেভাবেই খাই

  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ১০৬ বার পড়া হয়েছে
পারুল বেগম
পারুল বেগম

মো. আতিকুর রহমান
বয়সের ভারে ন্যুব্জ হয়ে পড়েছেন, নিজের বয়স কতো তাও জানেন না। স্বামী মারা গেছেন কতো বছর আগে তাও সঠিক বলতে পারছেন না। দাম্পত্য জীবনে নেই সন্তান। শ্বাসকষ্টের রোগী হয়েও তিনি খুপড়ি ঘরে বসবাস করছেন। মানসের কাছে হাত পেতে যা পাচ্ছেন তা দিয়ে বাজারে গিয়ে সামর্থ অনুযায়ী কেনাকাটা করে যেভাবে পারছেন রান্না করছেন। খুপড়ি ঘরের টিনের চালা থেকে বৃষ্টি হলেই পড়ে পানি। এতো অভাব-অনটন এবং প্রতিক‚লতার মধ্যেও ঘরটি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে যেটুকু কাপড় আছে তা পরিধান করে নিজেকেও রাখছেন পরিপাটি। বলছিলাম রাজাপুর উপজেলার পুটিয়াখালী গ্রামের মীরেরহাট সংলগ্ন স্বামী-সন্তানহীন বৃদ্ধ বিধবা পারুল বেগমের কথা।
পারুল বেগমের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, ৩০/৪০ বছর আগে স্বামী মারাগেছেন। পেটে কোন সন্তানই হয়নি। বেসরকারী একটি সংস্থা থেকে একটি গরু দিছিলো, তা লালন পালন করে বড় করার পরে বিক্রি করে খুপড়ি ঘরটি তৈরী করি। টিনের চালার ফাকা দিয়ে পানি পড়ে খাডালে (ফ্লরে) কিছু নাই। শ্বাসকষ্ট, প্রেসার, গ্যাস্ট্রিকসহ অনেক রোগ বাসা বেধেছে শরীরে। যদি পারি দুটো চাল রান্না করি, তরকারী মানসের কাছ থেকে চেয়ে আনি। যেভাবে পারি সেভাবে নিজে নিজে রান্না করে খাই। কখনও খেয়ে আবার কখনও না খেয়েও থাকি। যখন বেশি অসুস্থ থাকি তখন পাশে চাচাতো ভাই’র ঘর থেকে খাবার দিয়ে যায়। আল্লাহ যেভাবে খাওয়ায় সেভাবেই খাই।
পারুল কষ্টের কথা বর্ণনা করে আরো জানান, মা, বাবা, ভাই, বোন, স্বামী, সন্তান, ঘর কিছুই নাই। ঘরের পাশে আছে চাচাতো ভাই। একখান বিধবা ভাতা’র কার্ড আছে। শরীর যেভাবে খারাপ থাকে তাতে প্রতিমাসেই ২হাজার টাকা ওষুধে খরচ হয়। যে ঘরে থাকি তাতে বৃষ্টি নামলেই পানি পড়ে সব ভিজে যায়। একটি ঘর হলে রাতে অন্তত একটু শান্তিতে ঘুমাতে পারতাম।
স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পুটিয়াখালী ভলান্টিয়ার্স এর সভাপতি সৈয়দ শাহাদাত হোসেন জানান, অসহায় বৃদ্ধ পারুল বেগম ভীষণ কষ্টে জীবনযাপন করছেন। তার মা, বাবা, ভাই, বোন, স্বামী, সন্তান, ঘর কিছুই নাই। মাঝে মধ্যে আমরা স্থানীয়দের কাছ থেকে চাঁদা তুলে ওষুধের ব্যবস্থা করি। বৃদ্ধ পারুল বেগম জীবনের শেষ প্রান্তে এসে একটি ঘরের জন্য আকুতি করছেন। তিনি একটি ঘর পেলে অসহায় ও রোগাক্রান্ত হলেও অন্তত রাতে একটু শান্তিতে ঘুমাতে পারতেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews