গাভারামচন্দ্রপুর মহিলা লীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে আ. লীগ নেতার পাল্টা অভিযোগ

0
206
ঝালকাঠি: সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আওয়ামী লীগ নেতা নুরে আলম।

স্টাফ রিপোর্টার
ঝালকাঠিতে মহিলা লীগ নেত্রী বিউটি বেগমের বিরুদ্ধে দলীয় প্রভাব বিস্তার করে সরকারি সহায়তা পাইয়ে দেওয়ার নামে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করেছেন এক আওয়ামী লীগ নেতা। শুক্রবার (১৯ জুন) দুপুরে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নুরে আলম এ অভিযোগ করেন। বিউটি বেগম একই ওয়ার্ডের মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।
বোম্বাই মরিচের পানি দিয়ে তাকে নির্যাতন করা হয়েছে দাবি করে বুধবার প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে নুরে আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন বিউটি। এ ঘটনায় পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে বিউটি বেগমের বিরুদ্ধে মিথ্যা নাটক সাজিয়ে অপপ্রচার, ক্ষমতা অপব্যবহার, মামলা দিয়ে হয়রানি, বিরোধ সৃষ্টি, জনপ্রতিনিধিদের সম্মানহানিসহ নানা অভিযোগ করেন নুরে আলম।
লিখিত অভিযোগে নুরে আলম দাবি করেন, বিউটি বেগম আমার চেয়ে বয়সে অনেক বড়। একজন বয়স্ক মহিলাকে অনৈতিক প্রস্তাব দেওয়ার কথা বলে তিনি আমার সম্মানহানি করেছেন। তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারি সহায়তা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে স্থানীয় মানুষের কাছ থেকে টাকা নেন। কিন্তু কাজ না দিয়ে তিনি এসব টাকা আত্মসাত করেন। কেউ টাকা চাইতে গেলে, তাকে বাড়িতে আসতে বলেন। বাড়িতে লোকজন জড়ো করে অসামাজিক কাজের অভিযোগ করে উল্টো টাকা দাবি করেন। তার বিভিন্ন অনিয়ম ও অন্যায় কর্মকান্ডে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা মাছুম শেরওয়ানিসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বাধা দিলে, তাদের বিরুদ্ধেও ষড়যন্ত্র করছেন ওই নারী। বিউটি বেগমের সঙ্গে তার দেবরের স্ত্রীর জমিনিয়ে বিরোধ রয়েছে। এরই জেরে গত ১৯ মে বিউটি বেগমকে মারিচ পানি মাথায় দেয় দেবরের স্ত্রী। এ ঘটনায় আমাকে জড়িয়ে একটি অভিযোগ দেয় থানায়। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে আমার সম্পৃক্ততা পায়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে নতুন করে বিপদে ফেলার পায়তারা করছেন বিউটি। তিনি বিউটির অন্যায় কর্মকান্ডের বিচার দাবি করেন সংবাদ সম্মেলনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here