1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন

কাঁঠালিয়ায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ্য বাঁধ পরিদর্শন করলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী

  • প্রকাশিত : বুধবার, ৩ জুন, ২০২০
  • ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে
ঝালকাঠি: কাঁঠালিয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করেন বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী।

ফারুক হোসেন খান
ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে ২৯ কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ পরিদর্শন করলেন বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো.হারুন অর রশীদ। ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন’র উদ্যোগে এবং পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও উপমন্ত্রী এ. কে. এম. এনামুল হক শামীম এর নির্দেশনায় তিনি বুধবার (৩ জুন) বিকেলে কাঁঠালিয়া উপজেলা সদরের লঞ্চঘাট এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ পরিদর্শন করেন।
এসময় তাঁর সাথে তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. শফি উদ্দিন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হক মনির, ভাইস চেয়ারম্যান মো. বদিউজ্জামান সিকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. হাবিবুর রহমান উজির সিকদার, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট তরিকুল ইসলাম খোকন সিকদার, ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুল হক কামাল, মাহমুদ হোসেন রিপন, কামরুজ্জামান লিটন, বিআরডিবির চেয়ারম্যান কাওসার আহম্মেদ জেনিভ, জেলা পরিষদ সদস্য মো. শাখাওয়াত হোসেন অপু, যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি মাহামুদুল হক নাহিদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক জুয়েলসহ জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা সঙ্গে ছিলেন।
প্রধান প্রকৌশলী উপজেলার জাঙ্গালিয়া থেকে আমুয়া পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। টেকসই স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য প্রধান প্রকৌশলীর নিকট জোর দাবী জানান এলাকাবাসী।
ঝড় জলোচ্ছাসে প্রতিটি দুর্যোগে বাঁধ বিপন্ন হয়। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পার হলেও বাঁধ নির্মাণের কোন উদ্যোগ নেই। ঘূর্ণিঝড় আম্পানের ঝড় জলোচ্ছাসে বাঁধটি ভেঙ্গে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। ভেসে গেছে মাছের ঘের, বিধ্বস্ত হয়েছে বাড়ী-ঘর, উপড়ে গেছে অসংখ্য গাছপালা। পোলট্রি শিল্পের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার আমুয়া থেকে জাঙ্গালিয়া পর্যন্ত ২৯ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঘুূর্ণিঝড় সিডর পরবর্তী প্রতিটি ঝড় জলোচ্ছাসে আক্রান্ত কাঁঠালিয়া সদর, বড় কাঁঠালিয়া, জয়খালী, সৌলজালিয়া, রঘুয়ারচর, রঘুয়ারদড়িচর, চক্রগুয়া, তালগাছিয়া, আওরাবুনিয়া ও জাঙ্গালিয়ার ১০টি পয়েন্টে ভেঙ্গে বাঁধটি চরম বিপর্যস্ত অবস্থায় রয়েছে। এতে প্রতিদিন জোয়ারের পানিতে ফসলের মাঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়।
বজলুল হক হারুন এমপি শতকন্ঠ’কে জানান, কাঁঠালিয়ার মানুষের যেমন প্রাণের দাবি বেড়িবাঁধ নির্মাণ, তেমনি এলাকার সংসদ সদস্য হিসেবে আমারও প্রাণের দাবি এটি। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং কর্তৃপক্ষের সাথে এ বিষয়টির সমাধানে আমি অফিসিয়াল এবং মৌখিকভাবে দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। খুব শিঘ্রই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে কাঁঠালিয়া উপজেলাকে রক্ষা করার মধ্য দিয়ে উপজেলাবাসীর প্রাণের দাবিটি বাস্তবায়ন করা হবে ইনশাহ আল্লাহ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews