1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

কালিকাপুর মডেল অনুসরণে, ঝালকাঠির ৩২ ইউনিয়নে ১০২৪টি পারিবারিক সবজি বাগান সম্প্রসারণের উদ্যোগ

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০
  • ৩২৪ বার পড়া হয়েছে
কালিকাপুর মডেলে সবজি ক্ষেত। ফাইল ছবি।

মো. আতিকুর রহমান
করোনা দুর্যোগে যাতে কোন ধরনের খাদ্য ঘাটতি না পড়ে এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব ধরনের জমিকে চাষাবাদের আওতায় নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সে নির্দেশনা অনুযায়ী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কালিকাপুর মডেলে (একখন্ড জমিতে কয়েকধরনের সবজি চাষ) পারিবারিক সবজি চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ঝালকাঠি জেলার ৩২টি ইউনিয়নের ১ হাজার ২৪টি পরিবারকে এর আওতায় নিয়ে কালিকাপুর মডেলে পারিবারিক সবজি বাগান করার উদ্যোগ নিয়েছে ঝালকাঠি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
ঝালকাঠি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শাহ জালাল জানান, ঝালকাঠি জেলার সদর উপজেলার ১০ ইউনিয়নে, নলছিটি উপজেলার ১০ ইউনিয়নে, রাজাপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে এবং কাঁঠালিয়া উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে কালিকাপুর মডেলে সবজি চাষের উদ্যোগ নিয়েছে কৃষি বিভাগ। প্রতিটি ইউনিয়নের ৩২টি পরিবারকে এর আওতায় নেয়া হবে। আওতাভুক্ত প্রতিটি পরিবার পাবে ১০ ধরনের সবজি বীজ। কৃষক পরিবার তাদের বাড়ির আঙিনায় ৫ বর্গ মিটার যায়গায় ৫টি প্লট করে লতা জাতীয় ও লালশাক, পুঁইশাক, কলমি শাক ইত্যাদি চাষাবাদ করবেন। এই কাজের জন্য কৃষি বিভাগ কৃষক পরিবারকে বেড়া তৈরীর জন্য ১ হাজার টাকা, পরিচর্যার জন্য ৫শ টাকা এবং জৈব-অজৈব সার ক্রয়ের জন্য ৪৩৫ টাকাসহ মোট ১৯শত ৫০টাকা প্রদান করবেন। এই অর্থ কৃষকের মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রেরণ করা হবে। পারিবারিক সবজি বাগান কালিকাপুর মডেল অনুসরণ করে চাষাবাদ স¤প্রসারণের জন্য এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতি জনিত কারণে আবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি মন্ত্রণালয় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।
তিনি আরো জানান, ইতিমধ্যে সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ৩২০টি বাছাইকৃত কৃষক পরিবারের মাঝে বরাদ্দকৃত উপকরণ ও অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।
ঝালকাঠি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ ফজলুল হক জানান, সরকার কর্তৃক ঘোষিত করোনা দুর্যোগে যাতে কোন ধরনের খাদ্য ঘাটতি না পড়ে এজন্য সব ধরনের জমিকে চাষাবাদের আওতায় নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই এ নির্দেশনা ঘোষণা দেন। সে নির্দেশনা অনুযায়ী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কালিকাপুর মডেলে (একখন্ড জমিতে কয়েকধরনের সবজি চাষ) পারিবারিক সবজি চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ঝালকাঠি জেলার ৩২টি ইউনিয়নে ১০২৪ টি কৃষক পরিবারকে বাছাই করে এর আওতায় নেয়া হচ্ছে। উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। উপজেলা কৃষি অফিসারগণ তা তদারকি করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews