1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:২৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট:
সমালোচনার মুখে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, ভারত থেকে নাগরিকদের ফেরাতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের নতুন তারিখ দিয়েছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনের অভিযান, ঝালকাঠির ঈদ মার্কেটে ছুটির দিনে মানুষের ঢল, স্বাস্থ্য বিধির কোন তোয়াক্কা নেই বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার, ঝালকাঠিতে প্রস্তুতিমুলক সভা ঝালকাঠিতে অভ্যন্তরিণ চারটি রুটে গণপরিবহণ চলাচল শুরু ঝালকাঠি সিটি ক্লাবের পক্ষ থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে কৃষকের বোরো ধান সংগ্রহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাবিবুল্লাহ’র পদোন্নতিতে প্যান এর বরিশাল কো-অর্ডিনেটর এর অভিনন্দন রাজাপুরে ১২ সহাস্রাধিক দুঃস্থদের প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ঝালকাঠিতে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৪ জনকে জরিমানা
শিরোনাম:
সমালোচনার মুখে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, ভারত থেকে নাগরিকদের ফেরাতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের নতুন তারিখ দিয়েছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনের অভিযান, ঝালকাঠির ঈদ মার্কেটে ছুটির দিনে মানুষের ঢল, স্বাস্থ্য বিধির কোন তোয়াক্কা নেই বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার, ঝালকাঠিতে প্রস্তুতিমুলক সভা ঝালকাঠিতে অভ্যন্তরিণ চারটি রুটে গণপরিবহণ চলাচল শুরু ঝালকাঠি সিটি ক্লাবের পক্ষ থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে কৃষকের বোরো ধান সংগ্রহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাবিবুল্লাহ’র পদোন্নতিতে প্যান এর বরিশাল কো-অর্ডিনেটর এর অভিনন্দন রাজাপুরে ১২ সহাস্রাধিক দুঃস্থদের প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ঝালকাঠিতে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৪ জনকে জরিমানা

দক্ষিণ উপকূলের সপ্তাহব্যাপী বন্যা ঝালকাঠি জেলায় বিভিন্ন ফসলের ৩ কোটির বেশি টাকার ক্ষতি

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৮০ বার পড়া হয়েছে
ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের ক্ষেত
ঝালকাঠি: ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের ক্ষেত।

মোঃ আতিকুর রহমান
গত আগস্ট মাসের ১৮ তারিখে পানি বৃদ্ধি হয়ে দক্ষিণ উপকূল তলিয়ে যায়। সপ্তাহব্যাপী এ বন্যায় ঝালকাঠি জেলায় ৩ কোটিরও বেশি টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমন, গ্রীষ্মকালীন সবজি, পেপে ও আখের ক্ষতি হয়েছে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ২ কোটি ৫লাখ ৮হাজার ৯৬০ টাকা ক্ষতির পরিমাণ র্নিণয় করলেও মাঠ পর্যায়ে আরো ১ কোটিরও বেশি টাকার ক্ষতি হয়েছে।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ঝালকাঠি জেলার ৪ উপজেলার ৩২টি ইউনিয়নের ১৮হাজার ৮শ ৮১ হেক্টর জমিতে উফশী আমন বীজতলা, স্থানীয় আমন বীজতলা, উফশী আমন, স্থানীয় আমন, গ্রীষ্মকালীন সবজি, পান, পেপে চাষ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৭হাজার ৮শ কৃষকের ৭হাজার ৮শ ৩০ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ।
পরিসংখ্যানে উল্লেখ করা হয়েছে, আমন বীজতলার কোন ক্ষতি হয়নি। আবাদকৃত আমন (উফশী ও স্থানীয় জাত) ১৪হাজার ২শ হেক্টর জমির ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৭হাজার ২শ হেক্টর জমির ফসল। এতে ৮৩লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। ১৫শ ৮০ হেক্টর জমিতে আবাদকৃত গ্রীস্মকালীন সবজির ৪১০ হেক্টর জমির ফসলে ৭৩ লাখ ৮০হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। পান চাষের ৪শ ৮৬হেক্টর জমির বরজের ১৬০ হেক্টর জমিতে পানের বরজে ২৬ লাখ ৪০হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। পেপে চাষের ৩শ ৫০হেক্টর জমির বরজের ৫৮ হেক্টর জমিতে পানের বরজে ২২ লাখ ৫০হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।
এ ক্ষতির মধ্যে আখ চাষ, আমন ও উফশী আমন বীজতলার পরিসংখ্যান উল্লেখ করেনি কৃষি বিভাগ। তাছাড়াও প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র পর্যায়ের অনেক চাষীদের তথ্য এ পরিসংখ্যানে তালিকাভুক্ত নেই।
তৃণমূল পর্যায়ের কৃষকরা জানান, কৃষি কর্মকর্তারা সরেজমিনে পরিদর্শন না করেই ধারণা নির্ভর ক্ষতির পরিমাণের অনেক কম নির্ধারণ করে তালিকা করেছে। যা বাস্তবতার সাথে শতভাগ মিল নেই।
ঝালকাঠি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালম মো. ফজলুল হক জানান, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বরাবরে প্রেরণ করা হয়েছে। সরকারী প্রণোদনা বা ভর্তুকির কোন বরাদ্দ আসলে তা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে।
ক্ষতির পরিসংখ্যান ধারণা নির্ভর করে যদি কোন কর্মকর্তা করে থাকনে তাহলে প্রমাণ সাপেক্ষে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews