জেলা প্রশাসন আয়োজিত শোক সভায় আমু, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের মানচিত্র এনে দিয়েছেন

0
164
ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী।

কে এম সবুজ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বিশ্বনেতা, তাই ষড়যন্ত্রকারীরা তাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিয়ে বাংলাদেশের মানচিত্র এনে দিয়েছেন। গরিব-দুঃখি মানুষের বন্ধু ছিলেন তিনি। স্বাধীনতা বিরোধীরা যখন বুঝতে পারলো বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। তাই স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করা হলো। ঘাতকের সেই নির্মম বুলেটের কথা আজো ভোলেনি মানুষ। তাইতো বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় এনেছে এ দেশের জনগণ। শনিবার সকালে জেলা প্রশাসন আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের বর্ষিয়ান নেতা আমির হোসেন আমু আরো বলেন, শেখ হাসিনা প্রাণে বেঁচে আছেন বলেই তাঁর বাবার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলছেন। আজ বঙ্গবন্ধু হত্যা বিচার হয়েছে। বাংলার মাটিতে সেই খুনিদের ফাঁসির রায় কার্যকর করা হয়েছে। যারা বিদেশে পালিয়ে আছে, তাদেরকেও দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, সিভিল সার্জন ডাক্তার রতন কুমার ঢালী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম ফরিদ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক তরুন কর্মকার ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকির, মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা মোবারেক হোসেন মল্লিক। আলোচনা সভা শেষে জেলা শিশু একাডেমি আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরুস্কার ও গাছের চারা প্রদান করা হয়। এছাড়াও যুব উন্নয়নের অধিদপ্তর ১১ জন যুব উদ্যোক্তার মধ্যে ৭ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার ঋণের চেক বিতরণ করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্ট নিহতের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া মোনাজাত করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here