1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৬:৪৮ অপরাহ্ন

ঝালকাঠি জেলা যুবলীগে আবারও আহ্বায়ক কমিটি জিএস জাকির আহ্বায়ক, কামাল শরীফ যুগ্ম আহ্বায়ক

  • প্রকাশিত : সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ১৫৯৯ বার পড়া হয়েছে
জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করীম জাকির (বামে), যুগ্ম আহ্বায়ক কামাল শরীফ (ডানে)।

মো. আতিকুর রহমান
১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর যুবলীগ প্রতিষ্ঠা লাভ করে। যুবলীগের প্রতিষ্ঠাকাল থেকে অনুকূল-প্রতিকূল পরিবেশ এবং রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট পেরিয়ে একে একে ৪৮ বছর অতিবাহিত হয়েছে। কিন্তু ঝালকাঠিতে সেই থেকে যুবলীগের কার্যক্রম চলেছে শুধু আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে। গত ৬ আগস্ট এক চিঠিতে জেলা যুবলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্মআহ্বায়ক রেজাউল করীম জাকির (জিএস জাকির) কে আহ্বায়ক ও যুবলীগ নেতা কামাল শরীফকে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে বলে নিশ্চিতক করেছেন জিএস জাকির। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জেলা যুবলীগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও মিলাদ দোয়া অনুষ্ঠানে নতুন কমিটির আত্মপ্রকাশ ঘটে।
জেলা যুবলীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির আহ্বায়ক ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইসচেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান জানান, ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর যুবলীগ প্রতিষ্ঠা হওয়ার পরে ঝালকাঠি জেলার আহ্বায়কের দায়িত্ব পান শাহজাহান খলিফা। এরপর থেকে আহ্বায়ক কমিটি দিয়েই চলছে জেলা যুবলীগের কার্যক্রম। ২০১২ সালের ১৭ জুন আমাকে (লিয়াকত আলী খান) আহ্বায়ক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করীম জাকির ও যুবনেতা হাবিবুর রহমান হাবিলকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা দেয় কেন্দ্রীয় যুবলীগ।
সেই আহ্বায়ক কমিটি গঠনের আট বছর কেটে গেলো আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে। কেন্দ্র থেকে ঘোষিত কর্মসূচি যথাযথভাবে পালন করা হয়েছে বলেও জানান সাবেক আহ্বায়ক লিয়াকত আলী খান।
ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জামাল হোসেন মিঠু বলেন, চার থেকে পাঁচ বছর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছি। ২০১৫ সালের ১৯ জুলাই নতুন কমিটি দেয়ায় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা হয়েছি। কিন্তু যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় এখন কোনো পদ-পদবিতে নেই। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলে রাজনৈতিক পরিচয় দিতে হচ্ছে।
ছাত্রলীগের সাবেক নেতারাও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, একসময় ছাত্রলীগের তুখোড় নেতা। আর এখন আমাদের কোনো পদ-পদবি নেই। দন্তহীন বাঘের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছি।
আহ্বায়ক রেজাউল করীম জাকির বলেন, ছোটবেলা থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়েছি। সরকারী কলেজ ছাত্রসংসদের জিএস ছিলাম। জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। এসময়ে অনেক ঘাত-প্রতিঘাত উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আকড়ে ধরেই আছি। পরবর্তিতে জেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়কের দায়িত্ব্ পেয়ে সকল ধরনের কর্মসূচী সঠিকভাবে পালন করেছি। ঝালকাঠি জেলা যুবলীগ নেতৃবৃন্ধ ঐক্যবদ্ধ আছে। যুবলীগের নতুন কমিটিতে কোন মাদক কারবারিকে সদস্য করা হবে না বলেও ঘোষণা দেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews