1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ১২:১৪ পূর্বাহ্ন

ঝালকাঠি পৌরসভা ও ইউপি নির্বাচন, কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছেছে নির্বাচনি সরঞ্জাম—ঝুঁকিপুর্ণ কেন্দ্র ৯টি, শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও আনসার ভিডিপি সদস্য

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২১ জুন, ২০২১
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে
কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছেছে নির্বাচনি সরঞ্জাম
কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছেছে নির্বাচনি সরঞ্জাম।

মানিক রায়/আতিকুর রহমান

ঝালকাঠি পৌরসভা ও জেলার ৩১ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ সোমবার। রবিবার কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে নির্বাচনি সরঞ্জাম। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সব রকমের প্রস্তুতি নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের ভোট কেন্দ্রে শান্তি-শৃংঙ্খলা রক্ষায় ৩১৩ কেন্দ্রে ২৬জন ম্যাজিস্ট্রেট, ২৪২৭ জন পুলিশ সদস্য ও ৭৪৫৭জন আনসার ভিডিপি সদস্য ও ৩১৩ জন গ্রাম পুলিশ নিয়োজিত করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে সর্বনিম্ন পুলিশের ১ জন এসআই ও ৪জন কনেস্টবল এবং আনসার ভিডিপির একজন পিসি, একজন এপিসি (অস্ত্রধারী), সাধারণ ৭ জন মহিলা আনসার ভিডিপি ও ৮ জন পুরুষ আনসার ভিডিপি সদস্য ও একজন গ্রাম পুলিশ থাকবে। অধিক গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ০১ এসআই এর সাথে ০১ এএসআই ৫জন কনেস্টবলসহ ৬জন পুলিশ সদস্য থাকবে। প্রতিটি ইউনিয়নে কমপক্ষে পুলিশ সদস্যদের নিয়ে তিনটি করে স্ট্রাইকিং মোবাইল টিম থাকবে। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট উপজেলার থানা ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ স্ট্রাইকিং মোবাইল টিমের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে পারবেন। ম্যাজিস্ট্রেটদের তত্বাবধানের জন্য একাধিক কেন্দ্রের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন।

নির্বাচনি আইন অনুযায়ী, ভোটগ্রহণের ৩২ ঘণ্টা আগে প্রচার করতে হবে। সে অনুযায়ী শনিবার মধ্যরাত থেকে ভোটের প্রচার শেষ হয়েছে। প্রচারের শেষ মুহূর্তের কিছু ঘটনা উদ্বেগ বাড়িয়েছে, জানান দিয়েছে শঙ্কার কথাও। সোমবার অনুষ্ঠিতব্য ভোট নিয়ে সেই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ও শঙ্কার কথা বিবেচনায় রেখে নির্বাচন কমিশন (ইসি) বাড়তি সতর্কতা হিসেবে অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ ব্যাপারে পৌরসভা নির্বচনের রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. কামাল হোসেন জানান, আমরা সতর্ক। অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে যা যা করার সবই করা হবে।’ সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ঝালকাঠি পৌরসভা ও ৫টি ইউনিয়নে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে এবং ২৬টি ইউনিয়নে ব্যালটে ভোটগ্রহণ করা হবে। এরই মধ্যে ভোট গ্রহণের জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

জেলা নির্বাচন অফিস সুত্র জানায়, ‘সুষ্ঠু ভোটগ্রহণের জন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ম্যাজিস্ট্রেট, বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া প্রয়োজনে আরো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে।’

এই নির্বাচন নিয়ে ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে যেমন উত্তেজনা রয়েছে, তেমনি শঙ্কাও বিদ্যমান। ভোটের মাঠের পরিবেশ নিয়ে আরো শঙ্কা বাড়িয়েছে। নির্বাচনি পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে মাঠে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য।

এ নির্বাচনে দুটি রাজনৈতিক দল তাদের নিজস্ব প্রতীক নিয়ে এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা অংশ নিচ্ছে। তবে ভোটের আগেই তিন ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ও পৌরসভার ৩কাউন্সিলর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

৪উপজেলার ৩২ ইউনিয়ন নিয়ে জেলা গঠিত হলেও ২বছর আগে অনুষ্ঠিত হওয়া সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিদের মেয়াদ শেষ হয়নি। একারণে পোনাবালিয়া বাদে জেলার ৩১ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ঝালকাঠি জেলা নির্বাচন অফিসার অহিদুজ্জামান মুন্সি জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ম্যাজিস্ট্রেট, নির্বাচনী এলাকাগুলোতে বিজিবি, পুলিশ, আনসার ছাড়াও থাকছেন মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের সদস্য।

নির্বাচনি এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ট্রাক ও পিকআপ চলাচলের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইসি। তবে জরুরি প্রয়োজনের গাড়ি এবং হাইওয়ে নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পৌর এলাকার মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে ১নং ওয়ার্ডের সরকারী কলেজ, বিকনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, ৩নং ওয়ার্ডের জেলা পরিষদ, ৬নং বাসন্ডা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইছানীল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭নং ওয়ার্ডের কিফাইতনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৯নং ওয়ার্ডের মসজিদ বাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় (সিটি পার্ক), কলাবাগান সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সবগুলো কেন্দ্রকেই গুরুত্বপুর্ণ ধরে নেয়া হয়েছে।

জেলা নির্বাচন অফিস সুত্র আরো জানায়, ঝালকাঠি পৌরসভা ও জেলার ৩১টি ইউনিয়নে আজ সোমবারে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন পৌর মেয়র পদে ৩জন, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে পৌর এলাকায় ১৬ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩১জন এবং ইউপি চেয়ারম্যান পদে ১০১জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৩০৭জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৯৯৯জন। ৩১৩টি কেন্দ্রের ১৫০২টি কক্ষে এ ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ৪লাখ ৭৩ হাজার ৬৪০জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ৩১৩টি কেন্দ্রে ৩১৩জন প্রিজাইডিং অফিসার, ১৫০২টি কক্ষে ১৫০২ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৩হাজার ৪জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন।

ঝালকাঠি পৌর নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. কামাল হোসেন এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা অহিদুজ্জামান মুন্সি জানান, ২১জুন সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে ইতিমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জামাদি পাঠানো হয়েছে। যাতে জনসাধারণ নির্বিঘ্নে ও নির্দ্বিধায় ভোট দিতে পারেন। তারা আরো জানান, নির্বাচনকালীন আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও র‌্যাব মাঠ পর্যায়ে সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews