1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৮:৪৫ অপরাহ্ন

পৌরসভার নির্মাণাধীন ড্রেনের সাথে শৌচাগারের সংযোগ

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০
  • ৮৫৯ বার পড়া হয়েছে
ঝালকাঠি বিআইপি-বসুন্ধরা সংযোগ সড়কের ড্রেনে শৌচাগারের সংযোগ।

মোঃ আতিকুর রহমান
ঝালকাঠি পৌরসভার নির্মাণাধীন ড্রেনের সাথে টয়লেটের সরাসরি সংযোগ উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় ভেঙ্গে পড়ছে পৌরসভার পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা। অপরদিকে পৌরসভার পরিচ্ছনতা কর্মীরা নিয়মিত শহরের ময়লা-আবর্জনা অপসারণ না করায় ও ড্রেনেজ সিস্টেম সচল না রাখায় ড্রেনের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে রোগ-জীবাণু সংক্রমণের আশংকা দেখা দিয়েছে। পৌরসভার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও স্যানিটারি কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করলেও দুস্কৃতিকারীদের অসদাচরণে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
সরেজমিনে দেখা যায়, পৌর শহরের পূর্ব চাঁদকাঠি বিআইপি রোড ও বসুন্ধরা সংযোগ সড়কের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে মাসখানেক পূর্বে। পৌরসভার প্রকৌশলীদের পরিকল্পনায় কার্যাদেশ অনুযায়ী পূর্ব-পশ্চিম মুখী সড়কের উত্তর পাশে পয়োনিষ্কাশনের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে ড্রেন। সেই ড্রেনের সাথে শৌচাগারের সংযোগ দিয়েছে স্থানীয়রা। প্রায় আধা কিলোমিটার নির্মাণাধীন সড়কের উত্তর পাশে নির্মিত ড্রেনে ১৫টিরও বেশি শৌচাগারের সংযোগ রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের সাথে যোগসাজসে ড্রেনের সাথে শৌচাগারের সংযোগ দেয়া হয়েছে। ড্রেন নির্মাণ কাজ শেষ না হতেই শৌচাগারের সংযোগ দেয়ায় নির্গত ময়লার কারণে এটির দুর্গন্ধ ক্রমশ বাড়ছে। সুষ্ঠুভাবে কাজ করতে পারছে না শ্রমিকরা। এতে স্থানীয় পরিবেশ ও প্রতিবেশ বিনষ্ট হলেও কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না।
স্থানীয়দের অভিযোগ, নির্মাণাধীন সড়কের প্রবেশদ্বার আবাসিক হোটেল হিলটন (সাবেক শেফা ক্লিনিক) থেকে শুরু করে শেষ পর্যন্ত একই পরিমাপের জায়গা না রেখে কোন কোন স্থানে আকারে বেশি-কম পরিমাপের রাস্তা করা হচ্ছে। এজন্য ড্রেনটিও আকাবাকা করা হয়েছে। উত্তরদিকে নির্মিত বহুতল ভবনের নীচ থেকে ড্রেনটি নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু দক্ষিণ দিকের জায়গা খালি থাকলেও তা ব্যবহার করা হচ্ছে না। অভিযোগের তীর ঠিকাদারের দিকে ছুড়েছেন স্থানীয়রা।
এ ব্যাপারে ঠিকাদার নজরুল ইসলাম জানান, পৌরসভার ইঞ্জিনিয়ারের দেয়া প্লান অনুযায়ী কার্যাদেশ পেয়েছি। সে অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। স্থানীয় কয়েকজনে ড্রেনের সাথে শৌচাগারের সংযোগ দিয়েছে, যা তাদের নিষেধ করা সত্বেও ফেরেনি।
ঝালকাঠি পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হানিফ জানান, বিআইপি রোডের সাবেক শেফা ক্লিনিকের পাশ থেকে বসুন্ধরা রোডের সংযোগ সড়ক নির্মাণে স্থানীয়রা জায়গা দিতে চাচ্ছিলো না। তাদের কাছ থেকে অনেক কষ্টে জায়গা নিয়ে রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করেছি। নির্মাণাধীন রাস্তার পাশে নির্মিত ড্রেনে শৌচাগারের সংযোগ দেয়া হলে লোক পাঠিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews