1. admin@dainikshatakantha.com : dainikshatakantha :
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১২:৩৬ অপরাহ্ন

বেড়েই চলেছে রাজাপুরে করোনা সংক্রমণ, প্রতিরোধে মাঠে প্রশাসন

  • প্রকাশিত : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে
ঝালকাঠিতে করোনা সচেতনতায় জেলা প্রশাসনের অভিযান।
ঝালকাঠিতে করোনা সচেতনতায় জেলা প্রশাসনের অভিযান।

স্টাফ রিপোর্টার

ঝালকাঠির রাজাপুরে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হুহু করে বেড়েই চলেছে। সোমবারে সর্বোচ্চ শনাক্ত ১৭ জনকে ছাড়িয়ে নতুন করে মঙ্গলবার (২৯ জুন) একদিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৮ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে এ তথ্য জানা যায়। এ দিকে সচেতনতা বৃদ্ধি ও সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভের বিধিনিষেধ চলাকালীন গত দিনগুলোর অভিজ্ঞতায় মঙ্গলবার উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশ সচেতনতা সৃষ্টিতে মাঠে নেমেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব দিন দিন বাড়তে থাকার পরও করোনা সচেতনতায় সাধারণ মানুষ অনেকটাই অসচেতনভাবে ঘোরাফেরা ও কেনাকাটা করছে। করোনা আক্রান্তের হার বাড়লেও মানুষের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি মানার ও মুখে মাস্ক ব্যবহারের কোন বালাই নেই খোদ উপজেলা শহরেই। মানুষজন মাস্ক ছাড়াই বাজার ঘাটে চলাচল করছে, প্রশাসনের কোন নজরদারি নেই।

রাজাপুরে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪১৭ জনে। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ সদস্য, সংবাদ কর্মী ও চিকিৎসকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ৪ বেডের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি আছে ৭ জন। বাড়িতে বসে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১০০ জন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর চাপ সামলাতে ১২ বেডের আর একটি করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত রেখেছেন। আর এ কারণে উপজেলার সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক স্বাস্থ্য কর্মী জানান, প‚র্বে রাজাপুরে করোনা সংক্রমণের হার অনেক কম ছিল। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে হঠাৎ করে করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। আমাদের হাসপাতালের আউটডোর ও জরুরি বিভাগে এখন প্রায়ই করোনা উপসর্গ নিয়ে আসা রোগী পাওয়া যাচ্ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.আবুল খায়ের মাহমুদ রাসেল বলেন, “করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে আমরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১২ বেডের নতুন আর একটি করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত রেখেছি। শতাধিক রোগী নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। কারও সংক্রমণের কারণে অসুস্থতা বেড়ে গেলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার উদ্দেশ্যেই এ সামান্য আয়োজন।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
সর্বস্বত্ত্ব © দৈনিক শতকন্ঠ - ২০২১ কর্তৃক সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews