নলছিটি ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আ. লীগ নেতাকে প্রাণনাশের হুমকি

0
202
সংবাদ সম্মেলনে আমির সোহেল মল্লিক
বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন আমির সোহেল মল্লিক।

স্টাফ রিপোর্টার
ঝালকাঠির নলছিটির উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান সিকদারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা, মামলা ও মেরে ফেলার হুমকির অভিযোগ করেছেন একই ইউনিয়নের বাসিন্দা আওয়ামী লীগ নেতা আমির সোহেল মল্লিক। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে সোহেল মল্লিক ও তাঁর পরিবারকে গ্রাম ছেড়ে চলে যেতে বলেছেন ইউপি চেয়ারম্যান। অন্যথায় তাদের গুম ও খুনের হুমকি দিচ্ছেন প্রতিনিয়ত। রবিবার বিকেলে বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন আমির সোহেল মল্লিক। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তাঁর সহধর্মিণী ও দুই সন্তান।
সুবিদপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী আমির সোহেল মল্লিক অভিযোগ করেন, সুবিদপুর ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান সিকদার তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী। প্রতিদ্বন্দ্বিকে নির্বাচনের আগেই হত্যার ষড়যন্ত্র করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান। আমির সোহেল মল্লিক বলেন, আমি আমার পরিবার নিয় চেয়ারম্যানের সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে বাড়িতে থাকতে পারছি না। সুবিদপুর ইউনিয়নে যাতে তিনি নির্বাচনে দাঁড়াতে না পারেন সেজন্য চেয়ারম্যান মান্নান সিকদার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছেন। এ ব্যাপারে সোহেল মল্লিক তার রাজনৈতিক নেতা ও অভিভাবক আলহাজ্ব আমির হোসেন আমুসহ প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন।
আমির সোহেল মল্লিক আরও বলেন, মন্নান সিকদারের দুর্নীতি অনিয়মের কারণে সুবিদপুর ইউনিয়নের দশজন মেম্বর অনাস্থা দিয়েছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক হত দরিদ্রদের জন্য দেওয়া ঘর চেয়ারম্যান তাঁর নিজ মেয়ে জামাইকে দিয়েছে, অথচ তাঁর মেয়ে জামাই স্বাবলম্বি। তিনি বলেন, অন্যায় ও অসৎ পথে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন মান্নান সিকদার। বরিশালে বাড়ি নির্মাণ, দোকান, বিভিন্ন স্থানে জমি ক্রয় করাসহ কালো টাকার মালিক হয়েছেন। মন্নান সিকদার ভিক্ষুকদের টাকা আত্মসাৎ করেছেন, যার প্রমাণ আজ সকলের হাতে হাতে। সংবাদ সম্মেলনে মন্নান সিকদারের দুর্নীতি অনিয়ম ও অবৈধভাবে সম্পত্তি অর্জনের বিষয়টি দুদকসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে সোহেল মল্লিক বলেন, মন্নান সিকদারের জন্য আওয়ামী লীগের ও সরকারের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুন্ন হচ্ছে। এখনই এর প্রতিকার না করলে পরবর্তীতে দলের জন্য বড় ক্ষতি করে ফেলবে জাতীয় পার্টি থেকে আসা মান্নান সিকদার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here